লাশ রাখার জায়গা নেই ইতালির হাসপাতালে

অস্বাভাবিক মৃত্যুর ফলে মর্গে লাশ রাখা নিয়ে বিপাকে পড়েছে ইতালি। প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা। ইউরোপের পর্যটনসমৃদ্ধ দেশটি যেন এক মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে। করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৩৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২ হাজার ৫০৩ জনে।

জানা গেছে, মৃতদের সৎকারেও কড়াকড়ি করছে ইতালি সরকার। ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য শেষ প্রার্থনায় অল্প কিছু নিকটজনকে অনুমতি দেয়া হয় অংশগ্রহণে। পরিবারের সদস্যরাও তাতে মাস্ক পরে যোগ দেন। ইতালির আরেক গ্রাম জোঙ্গোতে স্থানীয় পাদ্রিরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, তারা দিনে একবার মৃত্যু ঘণ্টা বাজাবেন। কারণ করোনায় মৃত্যুর মিছিল বড় হতে থাকায় সারাদিনই ঘণ্টা বাজাতে হচ্ছিল।

একের পর এক বেড়েই চলেছে মৃতের সংখ্যা কিন্তু সে অনুযায়ী জায়গার সংকুলান হচ্ছে না মর্গে। স্থানীয় একটি চার্চের ধর্মযাজক বলেন, করোনার কারণে প্রতিদিন যেসব মানুষ মারা যাচ্ছেন তাদের নিরাপদে রাখার জায়গা নেই। স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের দাবি রোগীর তুলনায় হাসপাতালের সংখ্যা সীমিত। হাসপাতালের বেডে রোগীদের রাখার পর্যাপ্ত জায়গা নেই।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮ হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী মারা গেছেন ৭ হাজার ৯৮১ জন। এরমধ্যে শুধু চীনেই মারা গেছেন তিন হাজার ২৩৭ জন। আর বুধবার (১৭ মার্চ) সকাল সোয়া ৮ টা পর্যন্ত বিশ্বের ১৬৫টি দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৮ হাজার ৩৯৪ জন।

Check Also

পাকিস্তানে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু

এবার করোনা ভাইরাসে পাকিস্তানে প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *